Breaking News

কবে থেকে শুরু ভারতের বিশ্বকাপের আসল প্রস্তুতি? জানিয়ে দিলেন শিখর ধাওয়ান

নিউ জ়িল্যান্ডের বিরুদ্ধে এক দিনের সিরিজ়ে হারতে হয়েছে ভারতকে। তিন ম্যাচের সিরিজ় ০-১ ব্যবধানে হেরেছেন শিখর ধাওয়ানরা। বৃষ্টিতে দু’টি খেলা ভেস্তে গিয়েছে। এ বার সামনে বাংলাদেশ সফর। সেই সফর থেকেই তাঁদের বিশ্বকাপের প্রস্তুতি শুরু হবে বলে জানিয়েছেন নিউ জ়িল্যান্ডের বিরুদ্ধে এক দিনের সিরিজ়ে ভারতীয় অধিনায়ক ধাওয়ান।

তৃতীয় ম্যাচ বৃষ্টিতে ভেস্তে যাওয়ার পরে ধাওয়ান বলেছেন, ‘‘বাংলাদেশ সফরে দলের সিনিয়র ক্রিকেটাররা ফিরবে। তাই সেই সিরিজ় থেকেই আগামী বছরের বিশ্বকাপের প্রস্তুতি শুরু করব আমরা। যে দল বিশ্বকাপ খেলবে সেই দলের অনেককেই বাংলাদেশ সিরিজ়ে পাব। তা ছাড়া উপমহাদেশের উইকেটে খেলা হবে। তাই ওই সিরিজ়ে প্রস্তুতির ভাল সুযোগ পাব।’’ উল্লেখ্য, ২০২৩ সালে ভারতে এক দিনের বিশ্বকাপ। দেশের মাঠে আরও এক বার বিশ্বকাপ জেতার লক্ষ্যে নামবে ভারত।

নিউ জ়িল্যান্ড সিরিজ়ে দলে অনেক তরুণ ক্রিকেটারকে সুযোগ দেওয়া হয়েছে। এই সিরিজ় থেকে তাঁরা অনেক আত্মবিশ্বাস পাবে বলে মনে করেছেন ধাওয়ান। বলেছেন, ‘‘এই সিরিজ় থেকে তরুণরা অনেক কিছু শিখতে পারবে। যেমন, কোন লাইন-লেংথে বল করা উচিত। পরিস্থিতি অনুযায়ী কখন কী ভাবে বল করা উচিত। তা ছাড়া ব্যাট করার সময় জুটির গুরুত্বও বুঝতে পারবে ওরা। এই বিষয়গুলো মাথায় রাখলে ভবিষ্যতে ওদেরই উপকার হবে।’’

বুধবার নিউ জ়িল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ভারত ২১৯ রানে শেষ হয়ে যায়। ব্যাট করতে নেমে এক উইকেট হারিয়ে ১৮ ওভারে ১০৪ রান করে নিউ জ়িল্যান্ড। এর পরেই বৃষ্টি আসে। খেলা বাতিল হয়ে যায়। প্রথমে ব্যাট করতে নেমে শুভমন গিল মাত্র ১৩ রান করে আউট হয়ে যান। ধাওয়ান ২৮ রান করেন। শ্রেয়স আয়ার (৪৯) চেষ্টা করেছিলেন তিন নম্বরে নেমে। কিন্তু চার নম্বরে নেমে আবার ব্যর্থ ঋষভ পন্থ। তিনি মাত্র ১০ রান করেন। দুই ওপেনারকে হারিয়ে একটু বেকায়দায় ছিল ভারত। সেই সময় আরও বেশি দায়িত্ব নেওয়া প্রয়োজন ছিল পন্থের। কিন্তু হঠাৎ শর্ট বলে পুল করতে গিয়ে ডিপ স্কোয়ার লেগে ক্যাচ দেন ভারতের তরুণ উইকেটরক্ষক। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে রান করা সূর্যকুমার যাদব কিউইদের বিরুদ্ধে সে ভাবে নিজেকে মেলে ধরতে পারেননি। মাত্র ৬ রান করে আউট হয়ে যান তিনি।

ভারতের রান তাড়া করতে নেমে দুই কিউই ওপেনার সহজেই রান তুলতে থাকেন। ফিন অ্যালেন ৫৭ রান করে আউট হয়ে যান। উমরান মালিক তাঁর উইকেট নেন। ডেভন কনওয়ে ৩৮ রানে অপরাজিত। কেন উইলিয়ামসন ৩ বল খেললেও কোনও রান পাননি। ১৮ ওভারে যে অবস্থায় বৃষ্টি নামে তাতে ডার্ক অ্যান্ড লুইস নিয়মে ৫০ রানে এগিয়ে ছিল নিউ জ়িল্যান্ড। কিন্তু এক দিনের ক্রিকেটে দুই দল ২০ ওভার না খেললেও ডার্ক অ্যান্ড লুইস নিয়ম কার্যকর হয় না। তাই ম্যাচ বাতিল হয়ে যায়। ১-০ ব্যবধানে সিরিজ় জিতে নেয় নিউ জ়িল্যান্ড।

About admin

Check Also

ইতিহাস গড়লেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ম্যাচ সেরার পুরস্কার তার হাতেই

এই ম্যাচে ৩৬ রান দিয়ে ৫ উইকেট পেতে পারেন সাকিব আল হাসান। সঙ্গে ব্যাট হাতে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *