Breaking News

৪০০ বছরে ১ বার চালানো হয় বিশ্বের সবথেকে বড়ো কামান! যেখানে গোলা পড়ে সেখানে তৈরি হয় পুকুর

কামান এমন একটি অস্ত্র, যা যুদ্ধের সময় ব্যাপক ধ্বংসযজ্ঞ ঘটানোর ক্ষমতা রাখে। সে সময় শত্রুদের তাড়ানোর জন্য তরবারির পাশাপাশি কামানের গোলা ব্যবহার করা হতো। কামানটিকে সেই শতাব্দীর সবচেয়ে মারাত্মক অস্ত্র হিসাবে বিবেচনা করা হয়েছিল। ভারতে অনুরূপ একটি কামান রয়েছে যা ৪০০ বছরে একবার গোলা দাগে। এই কামানের নাম ‘জয়বান’। এটি জয়পুরের দুর্গে রাখা হয়েছে। এটিকে বিশ্বের সবচেয়ে বড় কামান বলা হয়েছে।

আপনি জেনে অবাক হবেন যে কামানের ব্যবহার শুরু হয়েছিল ১৩ এবং ১৪ শতকে। ১৩১৩ খ্রিস্টাব্দে ইউরোপে কামান ব্যবহারের প্রমাণ পাওয়া যায়। এমন তথ্যও সামনে এসেছে যে বাবর পানিপথের প্রথম যুদ্ধে কামান ব্যবহার করেছিলেন। একই সাথে, ভারতে একটি বিশেষ কামান রয়েছে, যা বিশ্বের বৃহত্তম কামানের মর্যাদা পেয়েছে।

এই কামানটি জয়পুরের দুর্গে রাখা আছে। এই বিশাল কামানটি ১৭২০ খ্রিস্টাব্দে জয়গান দুর্গে স্থাপন করা হয়েছিল। কামানটি তৈরি করেছিলেন রাজা জয় সিং, যিনি জয়পুর দুর্গের প্রশাসকও ছিলেন। তিনি তার রাজ্যের নিরাপত্তার জন্য এটি নির্মাণ করেছিলেন।

মজার ব্যাপার হলো, এই কামানটি কখনোই দুর্গ থেকে বের করা হয়নি বা এটি কোনো যুদ্ধে ব্যবহার করা হয়নি, কারণ এটি বেশ ভারী। এটি প্রায় ৫০ টন ওজনের বলে মনে করা হয়। এটি একটি দুই চাকার গাড়িতে রাখা হয়। যে গাড়ির ওপর এটি রাখা হয়েছে তার চাকার ব্যাস প্রায় সাড়ে চার ফুট।

এছাড়া এতে আরো দুটি অতিরিক্ত চাকা বসানো হয়েছে। এদের ব্যাস প্রায় নয় ফুট। এই কামানে প্রায় ৫০ কেজি গোলা ব্যবহার করা হয়েছে। এর ব্যারেলের দৈর্ঘ্য ৬.১৫ মি। ব্যারেলের বোরের ব্যাস ১১ ইঞ্চি এবং প্রান্তে ব্যারেল পুরুত্ব ৮.৫ ইঞ্চি। এই ভারী কামান তৈরির জন্য জয়গড়েই তৈরি করা হয়েছিল একটি কারখানা। এটি এখানে একটি বিশেষ ছাঁচে ঢালাই করা হয়েছিল।

তবে এই কারখানায় আরও কামান তৈরি হতো। দশেরার দিন এই কামানের পুজো করা হয়। এবার এই কামানের বিশেষত্ব এবং এতে ব্যবহৃত খোলস সম্পর্কে জানা যাক। এটি একবারই পরীক্ষা করা হয়েছিল। গুলি ছোড়া হলে তা প্রায় ৩৫ কিলোমিটার দূরে চাকসু নামে একটি শহরে পড়ে। যেখানে এই বল পড়ে সেখানে একটি বড় পুকুর তৈরি হয়। এই পুকুরে এখনও জল রয়েছে এবং স্থানীয় লোকেরা তাদের দৈনন্দিন কাজেও এই পুকুরের জল ব্যবহার করে।

About admin

Check Also

বাড়িতে মাংস না থাকলেও শুধু ডিম দিয়ে এই পদ্ধতিতে মাংসের চেয়েও মজার রান্না করে চমকে দিতে পারেন সবাইকে, চেটে পুটে খাবে সবাই রইল রেসিপি।

নিজস্ব প্রতিবেদন: আমাদের অনেকের বিভিন্ন আইটেম রান্না করার পদ্ধতি না জানার কারণে অনেক ধরনের আইটেম …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *