যেন নাগিন সিনেমা, সঙ্গীকে মে’রে ফে’লা’য় কৃষককে সাতবার কাম’ড় সাপের

নাগ নাগিনীর প্রতিশোধ আমরা কেবল সিনেমাতেই দেখেছি, দুজনের মধ্যে একজনের যদি কেউ ক্ষতি করে তাহলে আরেকজন সেই প্রতিশোধ নিয়ে থাকে। কিন্তু বাস্তবে এমন ঘটনা যে হতে পারে সেটা এই প্রতিবেদন না পড়লে আপনারা জানতে পারবেন না।

সম্প্রতি এমন একটি ঘটনা প্রকাশ্যে এসেছে সবার সামনে, যা দেখে কার্যত অবাক হয়ে গেছে সকলে। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তরপ্রদেশের রামপুরে। আসলে সঙ্গীর প্রতিশোধ নেওয়ার জন্য একটি সাপ ৭ বার কামড় বসায়। ঘটনাটি রামপুর জেলার সোয়ার তহসিল এলাকার অন্তর্গত গ্রাম মির্জাপুরের। সেখানকার এক বাসিন্দা এহসান ওরফে বাবলুকে ৭ বার কামড় দেওয়ার চেষ্টা করেছে , কিন্তু সৌভাগ্যবশত প্রত্যেকবার সে বেঁচে যায়।

এহসান একটি কৃষি খামারে কাজ করে,সেই সূত্রে গত কয়েক মাস আগে দুটি সাপের সাথে সাক্ষাত হয় তার। কিন্তু সাক্ষাৎ হওয়ার পরেই লাঠি দিয়ে একটি সাপকে তৎক্ষণাৎ মেরে ফেলে, আরেকটি পালিয়ে বাঁচে।

কিন্তু এহসান মনে করে, তার সঙ্গীর প্রতিশোধ নিতেই এসেছিল সাপটি। এককথায় একেবারে ফিল্মি কায়দায় প্রতিশোধ নিতে দেখা যায় সাপটিকে।

কারণ সেই যুবক যতবারই সেখানে কাজ করতে যায় ততোবারই তাকে দংশন করে সাপটি, হিসেব করলে দেখা যাবে মোট ৭ বারের মতো কামড় বসিয়েছে সাপটি । কিন্তু সঠিক সময়ে চিকিৎসা পাওয়ার জন্য প্রাণে বেঁচে যায় সে বারবার। এটা ফিল্মি কায়দায় প্রতিশোধ নেওয়ার ধারণ হলেও, যুবক একেবারে শঙ্কিত। কখন তার প্রাণ নিয়ে নেয় সাপটি?

এহসান সাপটিকে মারতে চাইলেও সাপটি যেন কিভাবে বারবার বেঁচে যায় তার হাত থেকে। সত্যি ভাগ্যের কি পরিহাস। মৃত্যু যেন দুজনকেই ছুঁয়ে ফের দূরে সরে যায়। এহসান খুবই দরিদ্র এক শ্রমিক, বারবার তাকে কাজের জন্য বাইরে যেতেই হয়, মাঠেঘাটে কাজ করতে হয়। কিন্তু সাপের আতঙ্ক তাকে যেন তাড়িয়ে বেড়াচ্ছে।

About admin

Check Also

২০০ বছর বয়স, এখনো কয়েকশো ফল দেয় এই কাঁঠাল গাছ

পানরুটি শহরের কয়েক কিলোমিটার দূরেই মালিগামপাট্টু নামক গ্রামে রয়েছে একটি ঐতিহ্যবাহী কাঁঠাল গাছ। গাছটির বয়স …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *