Breaking News

পছন্দ-অপছন্দ নয়, ইসলামে হিজাব বাধ্যতামূলক: জাইরা ওয়াসিম

ধর্মে মন দেবেন তাই রুপালি দুনিয়ার চাকচিক্য থেকে নিজেকে দূরে রাখতে চান। এই কথা বলেই বলিউডে অভিনয় ছেড়েছিলেন দঙ্গল-কন্যা খ্যাত অভিনেত্রী জাইরা ওয়াসিম। নিজের সমস্ত ছবি পর্যন্ত ইনস্টাগ্রাম থেকে মুছে ফেলেছিলেন তিনি। এবার তিনি কর্নাটকের হিজাব বিতর্ক নিয়ে মুখ খুললেন। ফেসবুক পোস্টে বলেছেন, পছন্দ বা অপছন্দ হিসেবে কেউ হিজাব পরেন না। ইসলামে হিজাব পরার বাধ্যবাধকতা আছে। খবর হিন্দুস্থান টাইমসের।

জাইরা তার ভেরিফায়েড ফেসবুক পোস্টে লিখেছেন, হিজাব ব্যক্তিগত পছন্দের একটি বিষয়, এই ধারণাটাই ভুল। নিজের সুবিধার্থে বা অজ্ঞতা থেকে এসব বলা হয়। হিজাব ব্যক্তিগত পছন্দ অপছন্দের বিষয় নয়। ইসলামে এর বাধ্যবাধকতা আছে। যে নারী হিজাব পরেন, তিনি সৃষ্টিকর্তার কাছে নিজেকে সমর্পণ করে দেয়ায় প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। আমি কৃতজ্ঞতা ও নম্রতার সঙ্গে হিজাব পরি। আমার মতো এক নারীর পক্ষে এই পুরো বিষয়টিই বিরক্তিকর যেখানে ধর্মীয় কর্তব্য পালনে নারীকে বাধা দেয়া হচ্ছে এবং হেনস্থা করা হচ্ছে।

জাইরা আরও লিখছেন, মুসলিম নারীদের শিক্ষা ও হিজাবের মধ্যে যেকোনো একটি বেছে নিতে বলা হচ্ছে। এমন একটি ব্যবস্থা গড়ে তুলে মুসলিম নারীদের প্রতি অবিচার করা হচ্ছে। নিজেদের সুবিধা ও উদ্দেশের জন্য মুসলিম মেয়েদের যেকোনো একটি বেছে নিতে বলা হচ্ছে। উপরন্তু তাদেরই সমালোচনা করা হচ্ছে। এটি খুবই খারাপ আচরণ।

ভারতে হিজাব বিতর্কের সূত্রপাত গত বছর ডিসেম্বরে। হিজাব পরিহিত কিছু মুসলিম মেয়েকে কর্নাটক রাজ্যের উদুপির একটি সরকারি কলেজে প্রবেশে বাধা দেয়া হয়েছিল। এরপর থেকে রাজ্যের একাধিক কলেজে নিষিদ্ধ হয়েছে হিজাব। চলতি মাসে সেই পরিস্থিতি আরও জটিল হয়ে দাঁড়িয়েছে। এমনকি পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে কলেজ চত্বরে লাঠি চার্জ পর্যন্ত করতে হয়েছে পুলিশকে। আপতত বিষয়টি কর্নাটক হাইকোর্টে বিচারাধীন।

উল্লেখ্য, ২০১৯ সালের ৩০ জুন সকলকে অবাক করে দিয়ে ‘দঙ্গল’, ‘সিক্রেট সুপারস্টার’-এর মতো ছবির মুখ জাইরা ঘোষণা করেছিলেন শোবিজ দুনিয়ার সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্ন করছেন তিনি। ধর্ম-বিশ্বাসের কারণ দেখিয়ে জাইরার অকাল অবসর নিয়ে কম শোরগোল পড়েনি, তবে নিজ সিদ্ধান্তে অবিচল এই কাশ্মিরি কন্যা।

About admin

Check Also

এবার এক রাতেই কোটিপতি মাছ বিক্রেতা

মাছ বিক্রি করে এক রাতেই কোটিপতি হয়ে গেছেন ভারতের পশ্চিমবঙ্গের এক মৎস্য ব্যবসায়ী। সামুদ্রিক মাছ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *