Breaking News

ওদের সামনে একটুও ভয় পাইনি, বললেন কর্নাটকের সেই কলেজছাত্রী

ভারতের কর্নাটকে একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ঢোকার সময় গেরুয়া বাহিনীর উপহাসের মুখে পড়া মুসকান নামে এক কলেজছাত্রীর প্রতিবাদের একটি ভিডিও ভাইরাল হয়ে ছড়িয়ে পড়েছে।উগ্র হিন্দুত্ববাদী স্লোগানের সামনে ভয় না পেয়ে “আল্লাহু আকবর” বলে কলেজে ঢুকে ভাইরাল হওয়া সেই কলেজ ছাত্রী বলেছেন, বোরকা পরার কারণে কলেজে ঢুকতে বাধা পেলেও সেসময় তিনি ভয় পাননি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এ কথা বলেন তিনি।

ওই সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, “কেবল বোরকা পরার কারণে আমাকে কলেজে যেতে দেওয়া হচ্ছিল না, এমনকি ‘জয় শ্রীরাম’ বলে চিৎকারও করছিল তারা। সেই অবস্থায় ভয় না পেয়ে আমিও ‘আল্লাহু আকবর” বলতে চিৎকার করতে করতে কলেজের ভেতর যাই। কলেজের অধ্যক্ষ এবং শিক্ষকরা সেইসময় আমার নিরাপত্তা নিশ্চিত করেন।”

শিক্ষাঅর্জনই তাদের মূল উদ্দেশ্য দাবি করে মুসকান বলেন, “কলেজে প্রবেশে বাধা যারা দেয়, তাদের ভেতর সর্বোচ্চ ১০% কলেজের শিক্ষার্থী ছিল, বাকিরা বহিরাগত। ওরা এক টুকরো কাপড়ের জন্য আমাদের শিক্ষাব্যবস্থাকে ধ্বংস করার চেষ্টা করছে।”

মুসকান বলেন, “গত সপ্তাহ থেকে এটা শুরু হয়েছে। আমি বরাবরই বোরকা আর হিজাব পরতে অভ্যস্ত। ক্লাসে বোরকা খুলে হিজাব পরে নিই। হিজাব এখন যেন আমার অঙ্গ হয়ে গিয়েছে। কলেজের প্রিন্সিপালও কোনও দিন কিছু বলেননি। বহিরাগতরা এটা শুরু করেছে। এই পরিস্থিতিতে প্রিন্সিপাল আমাদের বোরখা আনতে মানা করেছেন। কিন্তু হিজাবের দাবিতে আমাদের প্রতিবাদ জারি থাকবে।”

কর্নাটকের মাণ্ড্য প্রি-ইউনিভার্সিটি কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের বাণিজ্য শাখার ওই ছাত্রী বলেছেন, “আমার হিন্দু বন্ধুরাও আমার সঙ্গে আছে। আজ সকাল থেকে একের পর এক ফোন পাচ্ছি। আমি আশ্বস্ত।”

গত মাসে রাজ্যটির উদুপি জেলার সরকারি বালিকা পিইউ কলেজে ছয়জন মুসলিম ছাত্রীকে হিজাব পরার কারণে শ্রেণিকক্ষের বাইরে বসতে বাধ্য করা হয়। সেই সময় কলেজ প্রশাসন জানায়, ইউনিফর্মের অংশ নয় হিজাব এবং ওই ছাত্রীরা কলেজের নিয়ম লঙ্ঘন করেছে। ছাত্রীদের ক্লাসে হিজাব পরার বিষয়ে আপত্তি জানায় স্থানীয় ডানপন্থী বিভিন্ন গোষ্ঠী।

পরে রাজ্যটির অন্যান্য এলাকায়ও হিজাবের বিরুদ্ধে অনেক শিক্ষার্থী আন্দোলন শুরু করে। তারা কলেজে হিজাব নিষিদ্ধের দাবি তোলে এবং হিজাববিরোধী বিভিন্ন ধরনের স্লোগান দেয়।

About admin

Check Also

একসঙ্গে ৩ ছেলে সন্তানের জন্ম দিলো প্রতিবন্ধী নারী, একটি নিয়ে গেলো চোরে

পাবনা জেনারেল হাসপাতালে একসঙ্গে তিন সন্তানের জন্ম দিয়েছেন মানসিক প্রতিবন্ধী এক নারী। এর মধ্যে একটি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *