ধেয়ে আসছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় ‘গতি’, আতঙ্কে উপকূলবাসী

এইতো কিছুদিন আগে তাণ্ডব চালিয়ে গেছে ঘূর্ণিঝড় আম্পান। সেই রেশ এখনো কাটেনি। বিশেষত আম্পান যে দুর্বিষহ স্মৃতি তৈরি করেছে, তা আজও দগদগে ঘায়ের মতো মনে রয়ে গেছে। এবার ধেয়ে আসছে ‘গতি’ নামের আরেক ঘূর্ণিঝড়। রীতিমত চোখ রাঙানোও শুরু করেছে এই ঝড়টি। শারদীয় দুর্গাপূজার মধ্যেই নতুন এই ঝড় ভারতের পশ্চিমবঙ্গে আছড়ে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। খবর জি নিউজের

ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ এবং আম্পানের পর ‘গতি’ নামের এই নতুন ঘূর্ণিঝড়ের খবরে এখন আতঙ্কিত দেশটির উপকূলবাসী।

দেশটির আবহাওয়া অধিদপ্তরের পূর্বাভাস বলছে, ‘এবার পূজার আগেই পশ্চিমবঙ্গে আছড়ে পড়তে পারে ঘূর্ণিঝড় ‘গতি’। সোমবার সকালে ঘূর্ণিঝড়টি শক্তিশালী রূপ নিয়ে অন্ধপ্রদেশ উপকূল দিয়ে প্রবেশ করবে রাজ্যে। যার প্রভাবে ৬৫ কিলোমিটার গতিবেগে ঝড়ো হাওয়া বইতে শুরু করবে। সঙ্গে প্রবল ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।’

জি নিউজ পত্রিকার ওয়েবসাইটে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, আন্দামান সাগর থেকে এই নিম্নচাপ এখন পূর্ব-মধ্য বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। শক্তি সঞ্চয় করে এটি উত্তর উত্তর-পশ্চিম দিকে অগ্রসর হবে বলে জানিয়েছে হাওয়া অফিস। এর সরাসরি প্রভাব পশ্চিমবঙ্গে না পড়লেও কিছুটা আঁচ এ রাজ্যে পড়বে বলে মনে করা হচ্ছে।

এই নিম্নচাপ এবং ঘূর্ণিঝড়ের প্রভাবে আন্দামান এবং নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে প্রবল বৃষ্টির পূর্বাভাস দেয়া হয়েছে। এমনকি বঙ্গোপসাগরের একাংশ প্রচণ্ড উত্তাল হতে পারে বলেও জানা গেছে। যার ফলে রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। কলকাতায় আজ আংশিক মেঘলা আকাশ থাকবে। দু-এক পশলা বজ্রবিদ্যুৎসহ বৃষ্টির সামান্য সম্ভাবনা রয়েছে। বাতাসে জলীয় বাষ্প থাকায় আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তি থাকবে।

Facebook Comments
SHARE