চুপিসারে বিয়ে করলেন অভিনেত্রী শার্লিন ফারজানা

    প্রায় এক বছরেরও বেশি সময় পর্দায় দেখা মেলেনি মডেল ও অভিনেত্রী শার্লিন ফারজানার। এদিকে তার অভিনীত ‘উনপঞ্চাশ বাতাস’ সিনেমা মুক্তির কথা থাকলেও তা পিছিয়ে যায়। এই সময়টুকু নিজেকে একেবারেই আড়াল করে রেখেছিলেন জনপ্রিয় এই অভিনেত্রী। তবে এবার জানা গেলো, তার আড়াল হওয়ার কারণ।

    সবার প্রিয় এই মুখ অনেকটা চুপিসারেই বিয়ে করেছেন। জানা যায়, ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বর মাসে বিশিষ্ট ব্যবসায়ী, প্রকৌশলী ও আইটি বিশেষজ্ঞ এহসানুল হকের সঙ্গে বনানীর নিজস্ব বাসাতে বাগদান হয় শার্লিনের। শুধু তাই নয়, সে বছরের ২৩ নভেম্বর দুই পরিবারের সম্মতিতে এক ঘরোয়া আয়োজনে গুলশানের এক অভিজাত রেস্তোরায় বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন তারা। বিয়ের আয়োজনে ছিলেন হোসেন মোহাম্মদ (দুবাই)। বিয়ের অনুষ্ঠানের বর ও কনের পোশাকে ছিলো জেকে ফরেইন ব্র্যান্ড ও শার্লিনস সিগনেচার।

    এই বিষয়ে শার্লিন ফারজানার সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, সত্যি বলতে আমি ভীষণ আনন্দিত। সবকিছু আসলে হঠাৎ করেই হয়ে গিয়েছে। তবে আমাদের দুই পরিবারের সদস্য, ঘনিষ্টজনরা উপস্থিত ছিলেন। আমাদের বড় আয়োজন করে সবকিছু করার পরিকল্পনা থাকলেও সিনেমা মুক্তির কথা ভেবে সেটা তখন আর করা হয়নি। এরপর করোনার কারণে আর ওরকম কিছু ভাবিনি। তবে আগামী জানুয়ারি মাসে কাছের মানুষদের নিয়ে একটা বড় আয়োজনের গেট টুগেদার আয়োজন করার পরিকল্পনা আছে আমাদের।

    দুজনের পরিচয় কিভাবে, এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, কমন ফ্রেন্ড রিনার মাধ্যমে আমাদের পরিচয় হয়। তারপর এহসান প্রেমের প্রস্তাব না দিয়ে সরাসরি বিয়ের প্রস্তাব দেয়। আমার বাসায় জানার পর দুই পরিবারের উপস্থিতিতে আমাদের বাগদান হয়ে যায়। বলতে গেলে বাগদানের পরেই আমাদের প্রেমটা শুরু হয়। এই সময়টা আমরা দুজন দুজনকে চিনেছি, কাছ থেকে জেনেছি। এক কথায় অসাধারণ একটা সময় পার করেছি। তারপর নভেম্বরে পরিবারের সিদ্ধান্তে বিয়ে করি। আমাদের জন্য সবাই দোয়া করবেন। এখন যেই সুন্দর সময়টা পার করছি, বাকি সময়টা যেন এভাবেই কাটাতে পারি।

    অভিনয়ে ফেরা প্রসঙ্গে শার্লিন বলেন, এই সময়টা আসলে আমি নিজের মত কাটাতে চেয়েছিলাম যার কারণে এরমধ্যে অনেক কাজের প্রস্তাব এলেও ফিরিয়ে দিয়েছি। তবে আগামী জানুয়ারির পর ইন শা আল্লাহ আবারো কাজে ফিরবো।

    উল্লেখ্য, ২০০৮ সালে ‘ইউ গট দ্য লুক’ সুন্দরী প্রতিযোগীতার বিজয়ী হয়ে শোবিজে পথচলা শুরু করেছিলেন। এরপর বেশ কিছু নামীদামি ফ্যাশন হাউজের মডেল হয়ে নিজের উপস্থিতি প্রকাশ করেছেন। কাজ করেন বেশ কিছু বিজ্ঞাপনের মডেল হিসেবে। এরপর অমিতাভ রেজা চৌধুরীর ‘গ্রামীণফোন’ ও গাজী শুভ্রর ‘সিলন চা’ এর বিজ্ঞাপনের মডেল হয়ে রীতিমত নতুন করে আলোচনায় চলে আসেন তিনি। কাজ করেন অসংখ্য নাটকে। অভিনয়ের পথচলায় শার্লিন ফারজানা নিজেকে একজন অভিনেত্রী হিসেবেই প্রতিষ্ঠিত করে তুলছেন। মুক্তির অপেক্ষায় রয়েছে তার ‘উনপঞ্চাশ বাতাশ’ সিনেমাটি।

    Facebook Comments
    SHARE